চালককে খুন করে অটো রিকসা ছিনতাই, গ্রেফতার ৪

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি
বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) আম বাগান এলাকা অটো রিকসা চালক দুলাল মিয়াকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করে অটো ছিনতাইয়ের ঘটনায় চারজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, আলমগীর হোসেন, বাতেন মিয়া, লিটন মিয়া ও শুক্কর আলী। তারা প্রত্যেকেই ময়মনসিংহ নগরীর বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দা।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কোতোয়ালী মডেল থানার ওসি (তদন্ত) ফারুক হোসেন বলেন, এ হত্যাকান্ডের ঘটনায় ২৬ নভেম্বর রাতে নিহত দুলাল মিয়ার স্ত্রী জহুরা খাতুন অজ্ঞাতনামা আসামী করে কোতোয়ালী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলার পর গত ২৭ নভেম্বর রাতে ময়মনসিংহ নগরীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে আলমগীর হোসেন, বাতেন মিয়া, লিটন মিয়া ও শুক্কর আলীসহ চারজনকে গ্রেফতার করা হয়।

তিনি আরও বলেন, ২৮ নভেম্বর রাত ৯ টার দিকে গ্রেফতারকৃত আলমগীর হোসেন, বাতেন মিয়া, লিটন মিয়া ও শুক্কর আলীসহ তাদের মেজিস্ট্রেট হাফিজ আল হাসান’র আদালতে ১৬৪ ধারার জবানবন্দিতে আলমগীর হোসেন ও বাতেন মিয়ার অটো রিকসা চালক দুলাল মিয়াকে হত্যা কথা স্বীকার করেন। পরে তাদের আদালতের নির্দেশে জেল হাজতে পাঠানো হয়।

অপরদিকে গ্রেফতারকৃত লিটন মিয়া ও শুক্কুর আলী ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার না করায় রবিবার (২৯ নভেম্বর) ৫ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হবে।

পুলিশ এই কর্মকর্তা আরও বলেন, আলমগীর ও বাতেন পুর্ব পরিচিত। দুজনেই একসাথে বিভিন্ন অপরাধমুলক কাজ ও নেশা করত। নেশার টাকা জোগাড় করতেই আলমগীর তার স্ত্রীর পায়ের নুপুর সাত হাজার টাকায় বন্ধক দেয়। পরে আলমগীর বন্ধক থেকে ছাড়াতে পারেনি।

স্ত্রীর নুপুর বন্ধক থেকে ছাড়াতেই আলমগীর ও বাতেন অটো ছিনতাইয়ের পরিকল্পনা করে। এই পরিকল্পনার প্রেক্ষিতেই ঘটনার দিন রাত আটটার দিকে মাসকান্দা থেকে যাত্রীবেশে কয়েকজন দুলালকে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের আম বাগান এলাকায় ভাড়ায় নিয়ে যায়।

পরে দুলাল মিয়া আম বাগান এলাকায় যাওয়া মাত্রই আগে থেকে পরিকল্পনার অংশ হিসাবে বাতেনের কাছে থাকা চীকন রশি দিয়ে দুলালের গলায় পেচিয়ে ধরে।

এ সময় আলমগীরের হাতে থাকা চাকু দিয়ে অটো রিক্সা চালক দুলালের পিঠে আঘাত করে এবং রিক্সা থেকে তাকে ফেলে দেয়। পরে তারা রিকশা ছিনিয়ে দ্রুত পালিয়ে যায়।

পরে রাত সাড়ে ১০টার দিকে আম বাগান এলাকার বাসিন্দারা দুলাল মিয়াকে পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ গিয়ে দুলাল মিয়াকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

১৬৪ ধারার জবানবন্দিতে স্বীকার করা প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতেই রশি, চাকু ও ছিনতাই হওয়া অটো রিকসা উদ্ধার করা হয় বলে জানান পুলিশ এই কর্মকর্তা।

প্রসঙ্গত, বুধবার (২৫ নভেম্বর) রাত সাড়ে ১০টার দিকে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (বাকৃবি) এলাকার আমবাগান এলাকায় চালক দুলাল মিয়াকে হত্যা করে অটো রিকসা ছিনতাই করে করে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দিলে পুলিশ গিয়ে দুলাল মিয়াকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

Scroll Up