তারাকান্দায় পুকুরে গ্যাস ট্যাবলেট দিয়ে ৬ লাখ টাকার মাছ মেরে ফেলেছে দুবৃত্তরা

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি
ময়মনসিংহের তারাকান্দায় রাতের আঁধারে মাইজুল ইসলাম নামে এক ফিসারী ব্যবসায়ীর ৬ লাখ টাকার মাছ গ্যাস ট্যাবলেট দিয়ে মেরে ফেলেছে দুবৃত্তরা।
ফিসারী ব্যবসায়ী মাইজুল ইসলাম উপজেলার বিসকা ইউনিয়নের ভাটিয়াপাড়া গ্রামের আকবর আলীর ছেলে। সে গত ২০ বছরের বেশি সময যাবত ফিসারী ব্যবসা করে আসছে।
বৃহস্পতিবার (২৬ নভেম্বর) দ্বিবাগত মধ্য রাতে উপজেলার বিসকা ইউনিয়নের ভাটিয়াপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
এ বিষয়ে মাইজুল ইসলাম বলেন, ৫৫ শতাংশ জমিতে পুকুর খনন করে এবং পাশে আরও ২ টি পুকুরে কয়েক বছর ধরে দেশিয় বিভিন্ন প্রজাতির মাছ চাষ করে আসছি।
তিনি বলেন, গতরাত সাড়ে ১২ টার দিকে আমি তিনি পুকুর পাড় থেকে উঠে ঘরে গিয়ে শুয়ে পড়ি। ভোরে পরিবারের লোকজন পুকুর পাড়ে গিয়ে দেখে আমার ৫৫ শতাংশ পুকুরের সব মাছ পানি উপরে ভেসে মারা যাচ্ছে। এমন অবস্থা দেখে চিৎকার দিলে আমিসহ বাড়ির লোকজন এসে দেখি সব মাছ মরে পানির উপরে ভাসছে। এমতাবস্তায় এলাকার লোকজন ছুটে এসে জ্বাল দিয়ে পুকুর থেকে কিছু মাছ তুলে বাজারে পাঠানোর ব্যবস্থা করে।
তিনি আরও বলেন, এই ৫৫ শতাংশ পুকুরে ৬০ পিস হিসেবে কেজিতে পাবদা মাছ ছিল প্রায় ৩৫ মনের মত। দেশীয় রুই, কাতলা, মৃগেল, কারফিউ, ঘাস কার্প, লাট কার্পসহ বড় বড় বাংলা মাছ ছিল প্রায় ২০ মণের মত। সব মিলিয়ে আমার প্রায় ৬ লক্ষাধিক টাকার মাছ দুর্বৃত্তরা পুকুরে গ্যাস ট্যাবলেট দিয়ে মেরে নিঃস্ব করে দিয়েছে আমাকে।
কে বা কারা এমন কাজ করতে পারে এমন প্রশ্নের জবাবে মাইজুল ইসলাম কারোর নাম প্রকাশ করেননি। তবে তিনি এ বিষয়ে আইনের আশ্রয় নিবেন বলেও জানান তিনি।
এ বিষয়ে তারাকান্দা থানার ওসি আবুল খায়ের বলেন, পুকুরে বিষ দিয়ে মাছ নিধনের কোন কোন অভিযোগ এখনো কেউ করেনি। তবে, যদি কেউ অভিযোগ করে অবশ্যই আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।
Scroll Up