দিনভর থানার ভিতরে রফাদফার চেষ্টা, রাতে ধর্ষণ মামলা

 

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি

স্বামীর অবর্তমানে গভীর রাতে পরকিয়া প্রেমিককে মোবাইলে ডেকে আনেন স্ত্রী। বিষয়টি এলাকাবাসী টের পেয়ে দুজনকে আপত্তিকর অবস্থায় ধরে ফেলেন। এমতাবস্থায় দুজনের অভিবাবকদের নিয়ে রাতভর রফাদফার চেষ্টা করেন স্থানীয়রা। স্থানীয়রা মিমাংসা করতে না পেরে পরদিন সকাল ১১টার দিকের থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন। এরপর সকাল থেকে থানার ভিতরেও দুই পক্ষকে নিয়ে দিনভর চলে মিমাংসার চেষ্টা। থানাতেও মিমাংসায় ব্যর্থ হয়ে অবশেষে রাত ১১ টার টায় মামলা নেয় পুলিশ।

রবিবার (৬ জুন) রাত ১১ টার দিকে ময়মনসিংহের তারাকান্দা উপজেলার বানিহালা ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।

জনতার হাতে আটক পরকিয়া প্রেমিক নিজাম উদ্দিন (২৫) ওই উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের হিরারকান্দা গ্রামের আব্দুল বারেকের ছেলে।

সোমবার (৭ জুন) রাত ১১ টার দিকে ওই গৃহবধু বাদী হয়ে নিজাম উদ্দিনকে আসামী করে তারাকান্দা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন।

ওই দরবারে উপস্থিত থাকা এক ব্যক্তি নাম প্রকাশ না করার শর্তে  বলেন, প্রায় চার বছর আগে বিয়ে হয় বিয়ে হয় ওই গৃহবধুর। তার ঘরে দুই বছর বয়সের একটি সন্তান রয়েছে। দীর্ঘদিন যাবত নিজামের সাথে ওই গৃহবধুর প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছে। ঘটনার দিন রাতে স্বামী বাড়িতে না থাকার সুযোগে ওই গৃহবধু নিজামকে মোবাইলে তার স্বামীর বাড়িতে আসতে বলে। রাত ১১ টার দিকে নিজাম ওই গৃহবধুর ঘরে ঢুকলে স্থানীয়রা বিষয়টি বুজতে পেরে আপত্তিকর অবস্থায় তাদের আটক করে।

ওই রাতে স্থানীয়রা বিষয়টি মিমাংসার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। পরদিন ১১ টার দিকে দুইজনকে থানায় হেফাজতে নেয় পুলিশ।

তিনি আরও বলেন, প্রথম দিকে গৃহবধুর স্বামী তাকে নিতে অস্বীকার করলেও শেষ পর্যায়ে এসে ওই গৃহবধুকে নিতে চেয়েছিলেন তার স্বামী। তবে, ওই গৃহবধু স্বামীর ঘরে যাবে না বলে জানায়। এদিকে পরকিয়া প্রেমিক নিজাম উদ্দিন প্রথমে ওই গৃহবধুকে বিয়ে করতে চাইলেও শেষ পর্যায়ে এসে বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানায়। এরপরেই ওই গৃহবধু মামলা করার সিদ্ধান্ত নেয়।

এ বিষয়ে কামারগাঁও ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম  বলেন, ওই গৃহবধুর বাবার বাড়ি আমার ইউনিয়নে। তাদের অনুরোধে দুপুর দুইটার দিকে থানায় গিয়েছিলাম। কিন্তু, ওই গৃহবধুকে তার স্বামী গ্রহণ করবে না। এমতাবস্থায় গৃহবধু বাদী হয়ে ধর্ষণ মামলা দায়েরের সিদ্ধান্ত নেয়।

এ বিষয়ে তারাকান্দা থানার ওসি আবুল খায়ের  বলেন, স্থানীয়রা থানায় খবর দিলে সকালে ওই গৃহবধু ও নিজাম উদ্দিন আটক করে থানায় আনা হয়। এরপর দিনভর দুই পক্ষ মিমাংসা করার চেষ্টা করেন। কিন্ত, বিষয়টি মিমাংসা হয়নি। এরপর রাত ১১ টার দিকে ওই গৃহবধু নিজাম উদ্দিনকে আসামী করে ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।

 

Scroll Up