নতুন প্রজাতির বেগুনি পাতার সোনালী ধানের জমি দেখতে মানুষের ভীড়

সেলিনা কবীর ।। চারদিকে সবুজ ধানে সোনালী শীষ। মনোরম সবুজের ভেতরে নজর কাড়ে বেগুনি ধানের জমিও।ময়মনসিংহ শেরপুর আঞ্চলিক মহাসড়কের পাশ দিয়ে যাত্রাপথে তারাকান্দার মধুপুরে চোখ আটকে যায় সবুজের ভেতরে থাকা বেগুনি ধানের ক্ষেতে। প্রথমবারের মতো বেগুনি পাতার ধানের চাষ হয়েছে ময়মনসিংহের তারাকান্দায় ।মাদ্রাজী রাইস নামের নতুন প্রজাতির এ ধানের জমি দেখতে প্রতিদিন ভীড় করেন অনেক মানুষ।উপজেলার তারাকান্দা ইউনিয়নের মধুপুরের স্থানীয় কৃষক মোঃ আবুল হাশিম সরকার এবার তারাকান্দা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রকিব আল রানার পরামর্শে তার কিছু জমিতে চাষ করেছেন মাদ্রাজী ধানের । স্থানীয় কৃষি বিভাগের সহায়তায় এই কৃষক উপজেলায় প্রথম বারের মতো বেগুনি ধানের চাষ করে জনপ্রিয় হয়ে গেছেন। জমিতে বেগুনি পাতার ধান দেখতে ভীড় জমাচ্ছেন অনেকে। পরীক্ষামূলক জমি চাষ করতে তারাকান্দার উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রকিব আল রানা ৫ কেজি বীজ ধান সংগ্রহ করে দেন এই কৃষককে।ধানের প্রজাতি সম্পর্কে তিনি জানান ধানের পাতাগুলো বেগুনী রংয়ের হলেও ধান সোনালী রংয়ের। প্রতি হেক্টর প্রতি ফলন ৬ টন। ধান বীজ থেকে চারা উৎপাদন সর্বোপরি ফসল ঘরে তোলা পর্যন্ত সকল পর্যায়ে পরামর্শ দিয়ে সহযোগীতা করেন কৃষি কর্মকর্তা। দিগন্ত জোড়া সবুজ মাঠে এখন শোভিত হচ্ছে বেগুনি ধান। কৃষি বিভাগের তত্মাবধানে জমিতে ধানের আবাদও ভালো হয়েছে। সবুজের ভেতরে বেগুনি পাতার ধান গাছ দেখে যে কারো নজর আটকে যায়।উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রকিব আল রানা বলেন, ভারত থেকে আনা ধান বীজ প্রাথমিক ভাবে তারাকান্দায় হাশিম সরকারের ৩০ শতক জমিতে পরীক্ষামূলক ভাবে রোপন করা হয়।আশা করি ভালো ফলনে দিন দিন এই ধান চাষে আগ্রহী হয়ে উঠবে স্থানীয় কৃষকরা

Scroll Up