নিরুপায় হয়ে গ্রামবাসী নিজেদের অর্থায়নে ১কিঃমিঃ রাস্তা মেরামত।

কলমাকান্দা থেকে রীনা হায়াৎ
নেত্রকোনার কলমাকান্দা উপজেলার নাজিরপুর ইউনিয়নের পালপাড়া-পাঁচকাঠা সড়ক থেকে কয়রা পূর্বপাড়া আনোয়ার হোসেনের বাড়ি পর্যন্ত এক কিলোমিটার রাস্তা নিজেদের অর্থায়নে নির্মাণ করেছেন গ্রামবাসী।
স্থানীয়দের দাবি একাধিকবার আবেদন-নিবেদনের পরও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় অবশেষে তারা নিরুপায় হয়ে নিজেদের টাকায় এই রাস্তাটি নির্মাণ করেছেন।
সরেজমিনে দেখা যায়, পালপাড়া-পাঁচকাঠা সড়ক থেকে কয়ড়া পূর্বপাড়া পর্যন্ত রাস্তাটিতে একটি এ্যাস্কেভেটর মেশিন দ্বারা মাটি কাটার কাজ চলছে। পাশে দাঁড়িয়ে রাস্তাটির তদারকি করছেন গ্রামের ১০-১২ জন লোক। রাস্তাটির পাশে রয়েছে একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও দুইটি মাদ্রাসা। এই রাস্তাটি না হওয়ার কারণে যোগাযোগ ও অর্থনৈতিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে গ্রামটি অনেকটা পিছিয়ে।
স্থানীয় বাসিন্দা বীর মুক্তিযোদ্ধা শহিদুর রহমান, নিজাম উদ্দিন, সুরুজ মিয়াসহ ৮-১০ জনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, এলাকাবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি ছিল এই রাস্তাটি নির্মাণের। কিন্তু সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে ও জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগ করেও কোনো কাজ হয়নি। এতদিন শুধু তারা প্রতিশ্রুতিই দিয়েছেন। সম্প্রতি গ্রামের ৩০টি পরিবার তাদের নিজ অর্থে প্রায় দেড় লাখ টাকা ব্যয়ে ৬ ফুট উচ্চতা ও ১২ ফুট চওড়া বিশিষ্ট এক কিলোমিটার রাস্তা নির্মাণ করেন।
কয়ড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আমিরুল ইসলাম প্রতিনিধিকে বলেন,স্থানীয় লোকজনের আর্থিক সহযোগিতায় রাস্তাটি নির্মাণ করা হয়েছে। এই রাস্তাটি নির্মাণের ফলে স্কুলের ছাত্রছাত্রীসহ সাতটি গ্রামের প্রতিদিন অন্তত সাত হাজার মানুষের যাতায়াত ব্যবস্থা অনেক সহজ হয়েছে।
সারাদেশে যেখানে সরকারি অর্থায়নে ও ব্যবস্থাপনায় সড়ক নির্মাণ এবং রক্ষণাবেক্ষণ হচ্ছে, সেখানে স্থানীয়দের নিজ অর্থায়নে কেন রাস্তা নির্মাণ করতে হলো, এমন প্রশ্নের জবাবে নাজিরপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল কুদ্দুছ বাবুল প্রতিনিধিকে বলেন, আমার পরিষদ থেকে ওই রাস্তাটি নির্মাণের জন্য উদ্যোগ নিলে এলাকার লোকজন মাটি কাটতে বাঁধা দেয়। তাই রাস্তাটি নির্মাণ করা সম্ভব হয়নি। শুনেছি এখন তারা নিজেদের উদ্যোগে রাস্তাটি নির্মাণ করেছেন।

Scroll Up