ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলার সাকুয়া গ্রামে করোনার উপসর্গ নিয়ে মেহেদি হাসান রনি (২০) নামে এক যুবক মারা গেছে

ময়মনসিংহ প্রতিনিধিঃ

ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলার সাকুয়া গ্রামে করোনার উপসর্গ নিয়ে মেহেদি হাসান রনি (২০) নামে এক যুবক মারা গেছে। সোমবার (২০ এপ্রিল) দুপুরে নিজ বাড়ীতে মারা যাওয়ার পর স্বাস্থ্য বিভাগ তার নমুনা সংগ্রহ করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ ল্যাবে পাঠালে রাতে তার করোনা পজিটিভ হয়। রনি গাজীপুর জেলার জৈনা বাজার এলাকায় ব্যবসা করতো। সে এক সপ্তাহ আগে নিজ বাড়িতে আসে। এদিকে বিকাল থেকে ত্রিশালের ওই সাকুয়া এলাকা লকডাউন ঘোষনা করেছে উপজেলা প্রশাসন। এদিকে ময়মনসিংহ বিভাগের চার জেলায় নতুন করে আরো ১৬ রোগী সনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ময়মনসিংহ জেলার গফরগাঁও উপজেলা দুইজন ও ত্রিশালে একজন, শেরপুর জেলায় ৭ জন, নেত্রকোনা জেলায় ৫ জন এবং জামালপুর জেলায় একজন রয়েছে। ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে সোমবার (২০ এপ্রিল) দুই দফায় ১৮৮ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীা করে ওই ১৬ জনের করোনা পজিটিভ হয়। এনিয়ে ময়মনসিংহ বিভাগের চার জেলার করোনা আক্রান্ত ১১৭ জনের মধ্যে ময়মনসিংহ জেলায় ৩৬ জন, নেত্রকোনা জেলায় ২৯ জন, জামালপুর জেলায় ২৮ জন এবং শেরপুর জেলায় ২৪ জন রয়েছে। ময়মনসিংহ জেলায় এখন পর্যন্ত মারা গেছে দুইজন। এছাড়া শেরপুর জেলায় সুস্থ্য হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৫ জন।

মঞ্জুরুল ইসলাম

ময়মনসিংহ

[ad id=”18932″]

Scroll Up