শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ০৯:১২ অপরাহ্ন

শিরোনামঃ
দুই বছরের উন্নয়ন কর্মকান্ড নিয়ে চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ফারুকুল ইসলাম রতন এর মত বিনিময় সভা এ এসপি পরিচয়ে বিয়ের প্রস্তাব দিতে গিয়ে পুলিশের হাতে ধরা প্রতারক সোলাইমান গাঙ্গিনাপাড় এলাকায় ফুটপাত দখলমুক্ত করতে অভিযান কলমাকান্দায় সাংসদ মানু মজুমদারের অনুদানের চেক বিতরণ ময়মনসিংহ সিটিতে একাধিক উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন করলেন মসিক মেয়‌র -টিটু  কলমাকান্দায় ১২ লক্ষাধিক ব্যান্ডের শাড়ী জব্দ ময়মনসিংহে ফাইজার টিকাদান কার্যক্রম উদ্বোধন করেন মসিক মেয়র টিটু ময়মনসিংহের পরানগঞ্জে এলজিইডির রাস্তা নির্মাণে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ সিটি কর্পোরেশনের সেবাকে দ্রুত, সহজলভ্য ও নিবেদিত করতে আমরা দৃঢ় প্রতিজ্ঞ-মেয়র ইকরামুল হক টিটু

ময়মনসিংহের পরানগঞ্জে এলজিইডির রাস্তা নির্মাণে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার।। ময়মনসিংহ সদর উপজেলার পরানগঞ্জ ইউনিয়নে একটি গ্রামীন পাকা রাস্তা নির্মাণে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। নিন্ম মানের নির্মাণ সামগ্রী ব্যবহার করার পাশাপাশি সিডিউল না মেনে কাজ করা হচ্ছে। সংশ্লিষ্ট বিভাগের তদারকির মাধ্যমে সঠিক কাজ করার দাবী জানিয়েছেন এলাকাবাসী।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগের পরানগঞ্জ ইউনিয়নের বেগুন বাড়ী হতে রহিমগঞ্জ রাজলখালী পর্যন্ত ৮কিলোমিটার রাস্তা পাকারণ করা হচ্ছে। ৭ কোটি ৯৮ লাখ ১৫ হাজার ১৩৫ টাকার সিডিউলের কাজটি টেন্ডারের মাধ্যমে নর্দান বাংলাদেশ ইন্ডিগ্রেটেক্ট ডেভলপমেন্ট প্রজেক্ট লিমিটেড নামের একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান পায়। পরবর্তীতে ওয়ার্ক অর্ডার নিয়ে তারা কাজটি বাস্তবায়ন করছে।
কাজটির শুরু থেকেই নির্মাণ নিয়ে প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে নানা অনিয়মের অভিযোগ উঠে। স্থানীয়দের অভিযোগ নিম্নমানের কাজ করে হচ্ছে। যেখানে ১.৫ এফএম বালি দেওয়ার কথা সেখানে মানহীন ধুলাবালি আর পুরানো রাস্তার ইট ভেঙ্গে নতুন রাস্তার কাজে ব্যবহার করা হচ্ছে। কাজের সিডিউলে বৈইস সিলিংকে ১.৫ এফ এম, ডালায় ২.৫ এফ এম বালু ব্যবহারে কথা থাকলেও ব্যবহার করা হচ্ছে নিম্নমানের ধুলার মতো বালি। ১২ ফুট রাস্তায় দুই পাশে ৬ ফুট বালির মধ্যে পাশের ক্ষেতের দো-আশ মাটি ব্যবহার করা হচ্ছে। নির্মাণ কাজে ব্যবহৃত ইটের খোয়াগুলোও খুবই নিম্নমানের। সেখানে নতুন ইটের পরিবর্তে পূরাতন ইটের খোয়া ব্যবহার করা হচ্ছে।
স্থানীয় একাধিক ব্যক্তি অভিযোগ করে বলেন, এভাবে রাস্তাটি নির্মাণ করা হলে খুব দ্রুতই নষ্ট হয়ে যাবে। সংশ্লিষ্ট স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগ দেখভালের কথা থাকলেও তারা কোন খোঁজখবর নিচ্ছেন না বলেও অভিযোগ করেন এলাকাবাসী।
ময়মনসিংহ সদর উপজেলার স্থানীয় সরকার প্রকৌশলী নজরুল ইসলামের কাছে জানতে চাইলে তিনি বিষয়টি নিয়ে কিছু বলতে রাজি হননি। এলজিইডির অপর প্রকৌশলী আলী হাসান জানান, ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিদর্শন করা হবে। এবং কোন অনিয়ম হলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।
এলাকাবাসী রাস্তাটি নির্ধারিত সিডিউল মোতাবেক সঠিকভাবে নির্মাণ কাজ বাস্তবয়ানের জন্য সংশ্লিষ্ট বিভাগের উর্ধ্বতন মহলের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন।।

দয়া করে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


এ ধরনের সংবাদ পড়তে.............