মাছ চাষীর ভুলে বিদ্যুৎস্পৃষ্ঠে প্রাণ গেল ভ্যান চালকের ছেলের

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি
ফিসারি সেঁচে মাছ ধরা শেষে বৈদ্যুতিক তার ভুলে কাঁদার মাঝে ফেলে রেখে বাজারে যায় চাষী। সেই তারে জড়িয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ঠে মারা যায়, মাছ কুড়াতে যাওয়া এক বাকপ্রতিবন্ধী শিশু।

বৃহস্পতিবার (১২ মে) সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে ময়মনসিংহ জেলার তারাকান্দা উপজেলার বিসকা ইউনিয়নের খিঁচা এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। নিহত রাসেল মিয়া ওই এলাকার ভ্যান চালক নয়ন মিয়ার ছেলে।

বিসকা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাকের আহমেদ বাবুল বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

তিনি বলেন, ওই এলাকার মাছ চাষী মোশাররফ হোসেন রাতভর বৈদ্যুতিক মটরে নিজের ফিসারি সেঁচে সকালে মাছ ধরে। তবে, মাছ ধরা শেষে বৈদ্যুতিক মটর সরালেও ওই লাইনের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেননি। যে কারণে ওই বৈদ্যুতিক তার কাঁদার উপরে পরেছিল। পরে স্থানীয়রা সেঁচা পুকুরে মাছ ধরতে যায়। এই সময় বাপ্রতিবন্ধী শিশু রাসেলও মাছ ধরতে গিয়ে ওই বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ঠে গুরুতর আহত হয়। পরে স্থানীয় তাকে উদ্ধার কাশিগঞ্জ বাজারে নিয়ে গেলে স্থানীয় চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এবিষয়ে মোবাইলে ফিসারীর মালিক মোশাররফ হোসেনের সাথে যোগাযোগ করা হলে প্রথমে বজ্রপাতে ওই শিশু মারা গেছে বলে দাবি করে লাইন কেটে দেন। তবে, পরে আবারও ফোন করে তিনি বলেন, আমি মাছ ধরে বিক্রি করতে বাজারে চলে যাই। সেখানেই খবর পাই বিদ্যুৎস্পৃষ্ঠে এক শিশু মারা গেছে। পরে তাড়াতাড়ি ওই শিশুর বাড়িতে গিয়ে জানতে পারি বিদ্যুৎস্পৃষ্ঠে ওই শিশু মারা গেছেন। শুনছি পুলিশ আসবে।

এবিষয়ে তারাকান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল খায়ের বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। পরে বিস্তারিত বলা যাবে বলেও জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.