সিরাজগঞ্জের তাড়াশে সাংবাদিক মজিবুর শেখ কে অপহরণ ও হত্যার চেষ্টা

 

মফিজ উদ্দিন তালুকদার।।

সিরাজগঞ্জ জেলার তাড়াশ পৌর শহরে চাঁদাবাজির তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে বহুল আলোচিত আলোকিত নিউজ টুয়েন্টি ফোরের স্টাফ রিপোর্টার ও বাংলার আলো পত্রিকার সম্পাদক -প্রকাশক মোঃমজিবর রহমান কে পিস্তল ঠেকিয়ে তুলে নিয়ে গিয়ে হত্যা করার চেষ্টা করে পৌর টোলের ইজারাদার।

জানাযায়, গত ২৭/০৫/২০২২ইং তারিখে রাত্রি অনুমান ১০.৩০ ঘটিকার সময় তাড়াশ শ্রমিক অফিসের সামনে একটি চক্র পৌর টোলের নামে চাঁদাবাজির ঘটনা ঘটিয়ে আসছে দীর্ঘ দিন ধরে । উক্ত চাঁদাবাজির ভিডিও ফুটেজ করে তাড়াশ পৌরসভার পৌর প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জনাব মেজবাউল করিম কে মোবাইল ফোনে অবগত করার জের ধরে সাংবাদিক মজিবুর রহমান কে পথরোধ করে এবং মোঃ ইয়ার আলী(৪০) ও মোঃ সবুজ মিয়া(২২) পিস্তল ঠেকিয়ে সোহাগের দোকানের সামনে থেকে অপহরণ করে নিয়ে যায়।
পৌর টোলের ইজারাদার মোঃ মাসুদ গং ও তার চাচা আবদুল মান্নানের যোগ সাজে সাংবাদিক মজিবুর রহমান কে হত্যার উদ্দেশ্য পিস্তল দিয়ে আঘাত করে গুরুতরভাবে আহত করলে জীবন বাঁচাতে সাংবাদিক মজিবুর রহমান শেখ চেচিয়ে চিৎকার করতেই গ্রামের লোকজন লাইট নিয়ে বের হলে চাঁদাবাজ সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়।

প্রত্যক্ষদর্শী মোঃ শরিফ আলী, মোছাঃ লুৎফা বেগম হাসিনা, পপি, সোহাগ, রউফ সহ আরও অনেকের সাথে কথা বলে জানাযায়, মধ্যে রাতে চিৎকারের শব্দ শুনে বেরিয়ে দেখি রক্তাক্ত অবস্থায় সাংবাদিক মজিবুর রহমান দিঘিসগুনার ব্রীজের নিচে ইসলামের পুকুর পারে পরে আছে আর চাঁদাবাজরা পালিয়ে যাচ্ছে।
থানায় থেকে পুলিশ আসে এবং সেখান থেকে একটি নোকিয়া মোবাইল ফোন ও একটি মোটরসাইকেল উদ্ধার করে সাংবাদিক মজিবুর রহমানকে তাড়াশ সদর হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়।
সাংবাদিক মজিবুর রহমানের স্ত্রী মোছাঃ হোসনে আরা বেগম আহত মজিবুরকে তাড়াশ সদর হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নেয়ার পর সিরাজগঞ্জের ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন।

২৯/০৫/২০২২ (রোববার) মজিবুর রহমানের স্ত্রী হোসনেআরা বেগম তাড়াশ থানায় ১.মোঃ মাসুদ প্রাং(২৮) ২. আব্দুল মান্নান (৫০) ৩. মোঃ খাদিমুল ইসলাম (৫০) ৪.মোঃ ইয়ার আলী(৪০) ৫.মোঃ মুর্শিদ আলী(৩৬) ৬.মোঃ সবুজ মিয়া(২২) ৭.মেহেদী হাসান(১৯) ৮.মোঃ আশরাফুল ইসলাম(৩৪) ৯.মোঃ সাহেদ আলী(৪৪) তাদের নাম উল্লেখ করে একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

একই সাথে সকল সংবাদঃ