তারাকান্দা সাবরেজিষ্ট্রি অফিসের আয়োজনে মহান স্বাধীনতা দিবস উদযাপন

মফিজ উদ্দিন তালুকদার( ময়মনসিংহ)।। মহান মুক্তিযুদ্ধে আত্মদানকারী শহীদদের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদনের মধ্য দিয়ে ২৬শে মার্চ শনিবার সারা দেশের ন্যায় তারাকান্দা সাবরেজিষ্ট্রি অফিসে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত হয়েছে।

১৯৭১ সালের এই দিনে বিশ্বের মানচিত্রে নতুন রাষ্ট্র হিসেবে আত্মপ্রকাশের ঘোষণা দিয়েছিল একটি ভূখন্ড, যার নাম বাংলাদেশ। শনিবার ছিল সবুজ জমিনে রক্তিম সূর্যখচিত মানচিত্রের এ দেশটির স্বাধীনতার ৫১তম বার্ষিকী।

যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালন উপলক্ষ্যে ময়মনসিংহের তারাকান্দা সাবরেজিষ্ট্রি অফিসের সাবরেজিস্ট্রার মো.মাহফুজুর রাহমানের উদ্যোগে শনিবার সকালে তারাকান্দা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। এ দিবস উপলক্ষ্যে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন, কর্ম ও বাংলাদেশের স্বাধীনতা শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভার সভাপতিত্ব করেন সাবরেজিষ্ট্রার মো. মাহফুজুর রাহমান। উক্ত অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন তারাকান্দা দলিল লেখক সমিতির নেতা ও ময়মনসিংহ জেলা দলিল লেখক সমিতির অর্থ বিষয়ক সম্পাদক মো.মফিজ উদ্দিন সরকার। অফিস প্রাঙ্গনে আলোচনা সভা শুরু হয় সকাল ১০টায়। আলোচনা সভার শুরুতে পবিত্র কুরআন থেকে তেলাওয়াত করেন দলিল লেখক তাফাজ্জল হোসেন সরকার।পরে ৩০ লক্ষ শহীদদের বিদেহী আত্মার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। তারপর জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের মাধ্যমে আলোচনা সভার অনুষ্ঠান আরম্ভ হয়। আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মোছাঃ কামরুন্নাহার তমা। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাবরেজিষ্ট্রি কার্যালয়ের স্থান দাতা মো.আব্দুল বারেক সরকার। এছাড়া অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ময়মনসিংহ জেলা দলিল লেখক সমিতির সাবেক ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আলতাফ হোসেন সরকার, তারাকান্দা দলিল লেখক সমিতির সভাপতি বিল্লাল হোসাইন সরকার, সাধারণ সম্পাদক মুঞ্জুরুল হক সরকার, নকল নবীস এসোসিয়েশন তারাকান্দা সাবরেজিষ্ট্রি অফিস শাখার সভাপতি সুলতানা আক্তার ঝিনুক, দলিল লেখক আব্দুল্লাহ আল মামুন রাজিব, আকরামুল হক সরকার, বাবুল মিয়া সরকার প্রমুখ। আলোচনা সভার পর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও মহান স্বাধীনতার উপর সাধারণ জ্ঞানমুলক কুইজ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয় । তারপর দেশাত্মবোধক গান নিয়ে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন এবং বঙ্গবন্ধু ও স্বাধীনতার উপর লেখা কবিতা আবৃত্তির আয়োজন করা হয়। দেশাত্বকবোধক গানে প্রথম স্থান অর্জন করেন ফারহানা রেজিন, কবিতা আবৃত্তিতে প্রথম স্থান অর্জন করেন মো.মফিজ উদ্দিন সরকার এবং কুইজ কুইজ প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অর্জন করেন মো.আব্দুল্লাহ আল নোমান। অনুষ্ঠান শেষ হওয়ার পুর্বমুহুর্তে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন, কর্ম ও বাংলাদেশের স্বাধীনতা সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য রাখেন অনুষ্ঠানের সভাপতি সাবরেজিস্ট্রার মো.মাহফুজুর রাহমান। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অত্র অফিসের বিভিন্ন শ্রেণির কর্মচারী ও দলিল লেখকবৃন্দ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Share & Like
Share & Like