প্রেমিকার সাথে মনোমালিন্য ফেসবুক স্ট্যাটাস দিয়ে অনার্স পড়ুয়া শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা

ডেস্ক রিপোর্ট।। ময়মনসিংহের চর পুলিয়ামারীতে ফেসবুক স্ট্যাটাসে ‘আজ ঈদ টা শেষবারের মত পালন করবো’লিখে ঘরের পিছনে গাছের ডালের সাথে গলায় ফাঁস নিয়ে অলিউল্লাহ সোহাগ নামে গৌরীেপুর কলেজের মনোবিজ্ঞান বিভাগে অধ্যায়নরত এক শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে। মৃত্যুর আগে সোহাগ তার নিজের ফেসবুক প্রোফাইলে বেশ কয়েকটি ছবি,লেখা এবং নিজের গাওয়া একটি গান ভিডিও পোস্ট দেন।

রবিবার (১০ জুলাই ) ভোর রাতে কোন এক সময় এ ঘটনা ঘটে। অলিউল্লাহ সোহাগ ময়মনসিংহ সদরের চর নিলক্ষীয়া ইউনিয়নের চর পুলিয়ামারী এলাকার মকবুল হোসেন ভান্ডারীর ছোট ছেলে।

জানা যায়, অলিউল্লাহ সোহাগ পড়াশোনার পাশাপাশি ইভেন্ট ব্যবসার সাথে জড়িত ছিলো । কাজ করতেন একটা ইউটিউব টিভির লাইভ উপস্থাপনার। তার বাবা মকবুল হোসেন জানায়,প্রতিদিনের মতো রাতে তার ছেলে বাড়িতে ফিরে নিজ ঘরে ঘুমাতে যায়। সকালে তিনি প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে ঘরের পিছনে টয়লেটে যাওয়ার সময় গাছের সাথে ঝুলন্ত ছেলের লাশ দেখতে পেয়ে চিৎকার দিলে আশেপাশের লোকজন এসে ঘটনা প্রত্যক্ষ করে কোতোয়ালী মডেল থানায় খবর দেন। খবর পেয়ে কোতোয়ালী মডেল থানার এস আই টিটু সরকার ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করেন। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে টিটু সরকার বলেন, প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে প্রেমঘটিত কারনে এই আত্মহত্যা হতে পারে। তদন্ত চলছে অভিযোগ পেলে ব্যাবস্থা নেয়া হবে।

স্থানীয়দের সাথে কথা বলে এবং ফেসবুক প্রোফাইল দেখে জানা যায়, জনৈক এক তরুণীর সাথে সোহাগ এর প্রেমের সম্পর্ক ছিল। সম্প্রতি তাদের দু’জনের মধ্যে মনোমালিন্য হয়। এর জের ধরেই এ ঘটনা ঘটতে পারে।

এই ঘটনার পর পরিবার, বন্ধু বান্ধব এবং এলাকাবাসীর মাঝে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। সোহাগ নতুন প্রজন্মের মাঝে সৃষ্টি মনা ব্যাক্তি হিসাবে গ্রহণ যোগ্যতা অর্জন করতে পেরেছিলো।তার এই চলা যাওয়ায় সকলে মর্মাহত।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Share & Like
Share & Like